এই ১০ টি সাধারন লক্ষণ বলে দিবে আপনি থাইরয়েডের সমস্যায় ভুগছেন, সচেতন হন

থাইরয়েড হল আমাদের গলার পেছনে প্রজাপতি আকৃতির একটি গ্রন্থি। এই গ্রন্থি থেকে এমন অনেক হরমোন নিঃসৃত হয় যা আমাদের বিপাকীয় প্রক্রিয়ার উপর প্রভাব ফেলে। আমেরিকার থাইরয়েড অ্যাসোসিয়েশনের মতে, প্রায় ২০ মিলিয়ন আমেরিকান থাইরয়েডঘটিত সমস্যায় ভুগে থাকে। এদের ৬০% সনাক্ত করতে পারে না যে তাদের সমস্যাটি থাইরয়েডঘটিত। এতে সহজেই বোঝা সম্ভব থাইরয়েডের সমস্যা কত গুরুতর ও জানা প্রয়োজন।

আজ আপনাদের জানাবো থাইরয়েডঘটিত সমস্যার ১০ টি লক্ষণ। শেষে প্রয়োজনীয় বোনাস দেয়া আছে যা পড়তে ভুল করবেন না।

শুষ্ক, খসখসে ও পাতলা ত্বক
হাইপোথাইরয়েডিজম ত্বককে পাতলা ও খসখসে করে দেয়। ত্বক সহজে উঠে আসে।

পাতলা চুল ও চুল পড়া
চুলের পরিমাণ নির্ভর করে থাইরয়েডের হরমোন নিঃসরণের উপর। তাই থাইরয়েডের সমস্যা হলে চুল পাতলা হয়ে যায় ও চুল পড়া শুরু হয়।

অস্বাভাবিক অন্ত্রের কার্যকালাপ
থাইরয়েডের সমস্যার জন্য অন্ত্রের সমস্যা দেখা দিতে পারে। ফলে পেটের ও পায়ুর সমস্যা হয়।

বিষণ্ণতা/ হঠাৎ উত্তেজনা
বিষণ্ণতা কিংবা হুটহাট রেগে যাওয়া থাইরয়েড গ্রন্থির নিঃসরণের সমস্যার জন্য হয়ে থাকে। অধিক হরমোন নিঃসরণ ঘেমে যাওয়া কিংবা গরমবোধ তৈরি করে। আবার নিঃসরণ কমে গেলে উল্টোটা ঘটে।

অস্বাভাবিক ওজন বৃদ্ধি/হ্রাস
হরমোনের নিঃসরণের তারতম্যের জন্য ওজন বাড়তে কিংবা কমতে পারে।

অনিয়মিত মাসিক
থাইরয়েডের সমস্যা মাসিক অনিয়মিত করে দেয়।

মনোযোগ দিতে সমস্যা
থাইরয়েডের সমস্যার ফলে কাজে কিংবা পড়ায় মনোযোগ আনতে সমস্যা হয়। এমনকি এটি আপনার স্মৃতিশক্তিকে দুর্বল করে দেয়।

ঘাড়ের সমস্যা কিংবা বৃদ্ধি
থাইরয়েডের সমস্যা ঘাড় ঝুঁকিয়ে দেয় এবং ঘাড়ের বৃদ্ধি বাড়িয়ে দেয়। ফলে ঘাড়ের সমস্যা দেখা দেয়।

হৃদস্পন্দনে পরিবর্তন
থাইরয়েডের হরমোন নিঃসরণ হার্টবিট বাড়িয়ে কিংবা কমিয়ে দিতে পারে।

বোনাসঃ থাইরয়েডের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা কাদের বেশি?

১। মেয়েদের থাইরয়েডের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।
২। ষাটোর্ধ মহিলাদের থাইরয়েডের সমস্যা বেশি হয়।
৩। যাদের থাইরয়েডের সমস্যার পারিবারিক ইতিহাস রয়েছে।

থাইরয়েডের সমস্যা সনাক্তকরণে গলা পরিক্ষাঃ
ঘাড় সোজা করে ছবিরমত গলা ধরুন। এবার ঢোক গিলুন। যদি কোন ফোলা কিংবা দলা অনুভূত হয় অতিসত্বর চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

থাইরয়েডের সমস্যা নিয়ন্ত্রণে রাখার উপায়:

মেয়েদের মধ্যে এই সমস্যা একটু বেশিই লক্ষ করা যায়। তবে কিছু নিয়ম মেনে চলতে পারলে থাইরয়েডের সমস্যা নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। বেশ কিছু খাবার-দাবার আপনাকে থাইরয়েডের সমস্যা থেকে রেহাই পেতে সাহায্য করবে।

১. থাইরয়েড ব্যবস্থাপনার জন্য প্রোটিন খুবই জরুরি। তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় অবশ্যই প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার রাখবেন। চিজ, পনির, ডিম, মুরগির মাংস পরিমিত পরিমাণে খেলে থাইরয়েড গ্ল্যান্ড ঠিক মতো কাজ করতে পারবে।

২. থাইরয়েডের সমস্যা থাকলে সঠিক ডায়েটের সঙ্গে সঙ্গে প্রতিদিন নিয়ম করে শরীরচর্চা বা ব্যায়াম করাও জরুরি। সাইকেল চালানো বা সাঁতার থাইরয়েডের সমস্যা কমাতে খুবই কার্যকরী।

৩. থাইরয়েড ভালো ভাবে কাজ করার জন্য রাতে পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম খুব জরুরি। তাই রাতের ঘুমের সঙ্গে কোনও আপোস নয়। অনেকে রাতে জেগে থেকে দিনে বা ভোরের দিকে ঘুমান। যদি দিনের বেলাতেও আপনার পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম হয়, তাহলে ক্ষতি নেই।

৪. আয়োডিন যুক্ত খাবার থাইরয়েডের সমস্যা কমাতে খুবই কার্যকরী। আয়োডিন যুক্ত নুন রান্নায় দিয়ে খাওয়া যেতে পারে। এছাড়া কলা, গাজর, স্ট্রবেরি, দুধ, সামুদ্রিক মাছ, শাকপাতা ও মৌসুমী সবজিতে যথেষ্ট পরিমাণ আয়োডিন রয়েছে। তাই পাতে রাখতে পারেন এই খাবারগুলিকেও।

Realted Tag:

Marketa Vondrousova Wimbledon Shoe Brush Body Pillows Pillow Cubes Purple Pillow Sanitation Towel Superfeet Insole The Woman king Showtimes Top Women Boxers in the World Electric toothbrush charger Artificial Grass for Dogs Flare Leggings 4K Laptops