এক ছাগলের সাত বাচ্চা

রাজশাহীর বাঘায় উপজেলার আড়ানী ইউনিয়নের বেড়েরবাড়ি বিনিময়পাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের একটি দেশি ছাগী এক সাথে ৭টি বাচ্চা প্রসব করে। ৭টি বাচ্চা হওয়ায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

 

 

জানা যায়, সিরাজুল ইলামের ছাগীটা প্রতিবার ৩/৪ টি করে বাচ্চা দেয়। কিন্তু এবার প্রথম এক সাথে ৭টি বাচ্চার জন্ম দিয়েছে। বর্তমানে মা ছাগল ও বাচ্চাগুলো সুস্থ আছে এবং স্বাভাবিক চলাফেরা করছে।

 

 

ছাগলের মালিক সিরাজুল ইসলাম জানান, ছাগলটা আমাদের সংসারে অপরিহার্য অংশ। কারণ ছাগলটা প্রতিবার ৪/৫ করে বাচ্চা দেয়। আর এই বাচ্চা গুলো বিক্রি করে আমাদের ছেলে মেয়েদের লেখা পড়ার খরচ চালায়। তাছাড়া আমি ভটভটি গাড়ি চালায়। আবার কোন কোন সময়ে বাজারে বাদাম বিক্রি করে সংসার চালায়।

 

 

তিনি আরও বলেন, আল্লাহর অশেষ রহমতে ৭টি ছাগলের বাচ্চা হওয়ায় আমরা খুবই খুশী। ছাগলটি কয়েক বছরে মোট ৪০টির মতো বাচ্চার জন্ম দিয়েছে। বর্তমানে প্রতিদিন বাচ্চাগুলোর জন্য দুধ লাগছে ১২০ টাকা। আমি অল্প আয়ের মানুষ। নিজের সংসারের খরচের সাথে বাচ্চার দুধ কিনতে একটু কষ্টই হচ্ছে।

 

 

এ বিষয়ে আড়ানী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান প্রভাষক রফিকুল ইসলাম জানান, আমার এলাকায় এ ধরনের একটি ছাগলের ৭টি বাচ্চা এই প্রথম। বাচ্চা গুলোর সঠিক পরিচর্চা নেওয়ার জন্য আমি তার বাড়িতে গিয়ে পরামর্শ দিয়ে এসেছি।

 

 

উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. রোকনুজ্জামান জানান, একটি ছাগল চারটি পর্যন্ত ছাগলের বাচ্চা জন্ম নেওয়া স্বাভাবিক। কখনও পাঁচটিও হয়।

 

 

তবে ৭টি বাচ্চা জন্ম নেওয়া ব্যতিক্রম, তবে অস্বাভাবিক কিছু নয়। ঘটনাটি জানার পর ছাগলের মালিককে অফিসে যোগাযোগ করার জন্য বলা হয়েছে। এছাড়া সময় পেলে তার বাড়িতে গিয়ে ছাগলগুলো দেখে আসবো।

 

তথ্যসূত্রঃ আধুনিক কৃষি খামার

Add a Comment

Your email address will not be published.

CAPTCHA