দুগ্ধ খামার থেকে মাসে আয় তিন লাখ টাকা

পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলার বালিপাড়া গ্রামের ইছা হাওলাদার একজন সফল দুগ্ধ খামারি। তার খামারে গরু ছাড়াও রয়েছে ছাগল, ভেড়া, বাহারি কবুতর। তাদের খামারের নাম রাফি ডেইরি ফার্ম।

 

 

জানা যায়, ২০০৪ সালে জাহাজের শ্রমিকের চাকরি ছেড়ে দিয়ে নিজের ২ একর জমিতে গড়ে তোলেন দুগ্ধ খামার। ১০টি গাভি দিয়ে প্রথমে খামার শুরু করলেও ২ বছর পর গাভির সংখ্যা বেড়ে দাড়ায় ২৬টি। প্রতিদিন ২২০ লিটার করে দুধ দেয়। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে জেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে পাঠানো হয় দুধ।

 

 

ইছা হাওলাদার বলেন, নিজের এবং বড় ভাই রিয়াজ মিলে ৩ লাখ এবং বাবার ২ লাখ টাকায় তার খামারের শুরু। সেই টাকায় অবকাঠামো তৈরিসহ ১০টি গাভি কেনেন।

 

 

বর্তমানে খামারে গাভি ও ষাঁড় মিলে গরুর সংখ্যা ৫০টি। এ ছাড়া ৫০টি ছাগল, ১০টি ভেড়া ও ১০০ জোড়া বাহারি কবুতর রয়েছে। বর্তমানে সাত কোটি টাকার সম্পদ রয়েছে। খামারে ৬ জন শ্রমিক রয়েছে। তাছাড়া পাশাপাশি দুই ভাই মিলেমিশে কাজ করেন।

 

 

ইছা আরও বলেন, এখন প্রতিদিন খরচ বাদ দিয়ে দুধ বিক্রি থেকে প্রায় ১০ হাজার টাকা আয়। কবুতর, ছাগল-ভেড়া থেকে মাসে আয় ২০ হাজার টাকা। খামারে শাহিওয়াল, ফ্রিজিয়ানসহ বিভিন্ন জাতের গরু আছে। খামারের পাশে চার বিঘা জমিতে ঘাস চাষ হয়েছে। আছে ঘাস কাটার আধুনিক যন্ত্র।

 

 

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা হরিশ চন্দ্র বোস বলেন, উপজেলায় প্রায় ৪০টি খামারির রয়েছে। তাদের মধ্যে রাফি ডেইরি ফার্ম অন্যতম। তাদের নিয়মিত খোঁজ খবর নেন। সমস্যা সমাধানে চেষ্টা করেন।

 

তথ্যসূত্রঃ আধুনিক কৃষি খামার

Add a Comment

Your email address will not be published.

CAPTCHA