১২ মাসি পেয়েরা, বছরে আয় ৫ থেকে ৬ লাখ টাকা

পেয়ারা চাষে ব্যাপক সফলতা পেয়েছেন দিনাজপুরের সাইদুল। পতিত ৬ বিঘা জমি লিজ নিয়ে বারোমাসি থাই পেয়ারা চাষ করে সফল হয়েছেন। এখন স্বাবলম্বী তিনি। সাইদুল জেলার উত্তরে নবাবগঞ্জের হরিপুর এলাকার বাসিন্দা।

 

 

জানা গেছে, বন্ধুর পরামর্শে লিজ নেওয়া ৬ বিঘা জমিতে বারোমাসি থাই পেয়ারার ১২০০ টি চারা রোপণ করেন সাইদুল। প্রতিদিন বেশ কয়েক জন শ্রমিক এই বাগানে পরিচর্যা করে থাকে। ওই বাগানে পোকামাকড় দমনে কোনো কীটনাশক ব্যবহার করা হয় না।

 

 

পেয়ারা চাষি সাইদুল ইসলাম জানান, আমি একজন ক্ষুদ্র ফল ব্যবসায়ী ছিলাম। বিভিন্ন বাগান থেকে ফল ক্রয় করে বাজারে বিক্রি করে চলত আমার সংসার। তবে আমার বন্ধুর পরামর্শে ৬ বিঘা জমি লিজ নিয়ে আমি একটা পেয়ারার বাগান করেছি।

 

 

তিনি আরও জানান, বর্তমানে আমার বাগানে অনেকের কর্মসংস্থানের সুযোগ হয়েছে। ইতিমধ্যে ৫ লাখ টাকা খরচ করেছি। প্রতিদিন কেজিপ্রতি ৫০-৬০ টাকা দরে ১৫ থেকে ২০ মণ পেয়ারা বিক্রি করছি। এ পর্যন্ত দুই লাখ টাকার পেয়ারা বিক্রি করেছি। আশা করছি, প্রতি বছর ৫ থেকে ৬ লাখ টাকার পেয়ারা বিক্রি করব।

 

 

নবাবগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, উপজেলাটি বরেন্দ্র এলাকায় হওয়ায় অনেক জমি পড়ে থাকত। ইতোমধ্যে এসব জমিতে বিদেশি ফল চাষে পরমার্শ দিয়ে যাচ্ছি। এই উপজেলায় ৬ হেক্টর জমিতে পেয়ারার বাগান রয়েছে।

 

তথ্যসূত্রঃ ই- কৃষি

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

CAPTCHA