ছাগলের বাচ্চার যত্নে যে ভুলগুলি আপনি করেন

ব্লাচক বেংগল ছাগলের বাণিজ্যিক খামারে বাচ্চাই প্রধান উৎপাদিত পণ্য।তাই এর সঠিক খাদ্য ব্যবস্থাপনা অত্যন্ত জরুরী।

 

 

ছাগল ছানাকে খাদ্য খাওয়ানো

জন্মের পরপরই শুকনো পরিস্কার বাচ্চাকে যথাশীঘ্র মায়ের শাল দুধ খাওয়াতে হবে। শাল দুধ বাচ্চার প্রয়োজনীয় পুষ্টি যোগায় ও দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে ।বয়স ও ওজন ভেদে ছাগল ছানার প্রয়োজনীয় পুষ্টি ও খাদ্যের পরিমাণ ভিন্ন ভিন্ন হতে হবে।

 

 

ব্ল্যাক বেংগল ছাগলের সাধারণত দুধ উৎপাদন ক্ষমতা কম হওয়ায় 2-3 টি ছানা বিশিষ্ট দুধ প্রায়ই বাচ্চার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে হয় না। এ ক্ষেত্রে ছাগল ছানাকে উল্লেখিত পরিমাণে 39-40 ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় গাভীর দুধ বোতলে বা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন পাত্রে খাওয়াতে হবে। এ ক্ষেত্রে গাভীর দুধ পাওয়া না গেলে “মিল্ক রিপ্লেসার”তৈরি করে খাওয়ানো যেতে পারে ।উল্লেখিত দুধ বা মিল্ক রিপ্লেসার দিনে 4-5 বার খাওয়াতে হবে।

 

 

সম্ভাব্য “মিল্ক রিপ্লেসার” এর উপাদান –
উপাদান —————–পরিমাণ (%)

ননীমুক্ত গুড়ো দুধ ———–70.00
চাল,গম বা ভূট্টার গুড়ো — —20.00

সয়াবিন তেল ————— 07.00
খাদ্য লবণ ——————01.00

ডাই ক্যালসিয়াম ফসফেট —-01.50
ভিটামিন মিনারেল প্রিমিক্স —-00.50
——————————————
মোট= 100.00

 

 

একভাগ মিল্ক রিপ্লেসার নয় (9) ভাগ পানিতে মিশিয়ে তা অন্তত পাঁচ মিনিট ফুটিয়ে ঠান্ডা করে 39-40 ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ছাগল ছানাকে খাওয়ানো উচিত ।অর্থাৎ মিল্ক রিপ্লেসার ও পানির অনুপাত হবে 1 : 9।

 

 

বোতলে দুধ বা মিল্ক রিপ্লেসার খাওয়ানোর সাবধানতা– দুধ খাওয়ানোর আগে ফিডার, নিপল সহ আনুসাংগীক জিনিষ ফুটন্ত পানিতে রেখে জীবাণুমুক্ত করতে হবে। কখনোই বাসী বা ঠান্ডা দুধ খাওয়ানো যাবে না। যিনি দুধ খাওয়াবেন তার হাত সাবান দিয়ে পরিস্কার করে ধুয়ে নিতে হবে।

 

তথ্যসূত্রঃ এগ্রি ফারমস ২৪

Add a Comment

Your email address will not be published.

CAPTCHA