নতুন জুতোয় আর পরবে না পায়ে ফোস্কা , রইলো চমৎকার কিছু টিপস

নতুন জুতা পরে একটু হাঁটলেই গোড়ালি নয়তো পায়ের দু’পাশে ফোসকা পরবেই। আর ফোসকার যন্ত্রণায় একেবারে কাহিল অবস্থা। ওষুধপত্র দিয়ে কিছুটা স্বাভাবিক করার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু ব্যথা কমতে লাগে ঢের দেরি। এরকম অবস্থা আমরা অল্প বিস্তর সবাই ভুগে থাকি। কিছু নিয়ম মেনে চললে জুতোতে আর পরবে না ফোসকা।

এই অবস্থায় কয়েকটি উপায়ে চটপট ফোস্কা সারিয়ে তোলা যায়। আসুন এ বিষয়ে সবিস্তারে জেনে নেওয়া যাক…

১) নতুন জুতোর ঘষায় ফোস্কা পড়লে ফোস্কার জায়গায় দিনে অন্তত ৩ বার মধু লাগিয়ে দেখুন। এতে ফোস্কা দ্রুত শুকিয়ে যাবে।

২) নতুন জুতো পরার আগে পায়ে ভাল করে সরষের তেল বা নারকেল তেল মেখে নিন। এতে পায়ে ফোস্কা পড়ার ঝুঁকি অনেকটাই কমে যাবে।

৩) নতুন জুতোর ঘষায় ফোস্কা পড়লে ফোস্কার জায়গায় অ্যালোভেরা জেল লাগান। এতে পায়ের ফোস্কা খুব তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে।

৪) জুতোর চামড়ার যে জায়গাগুলো খুব শক্ত, পায়ে ঘষা লেগে ফোস্কা পড়তে পারে, সেখানে ভেসলিন লাগিয়ে রাখুন। এতে জুতোর ওই জায়গাগুলো কিছুটা নরম হয়ে যাবে। কমবে ফোস্কা পড়ার ঝুঁকিও।

৫) জুতোর যে জায়গাগুলো খুব শক্ত, পায়ে ঘষা লেগে ফোস্কা পড়তে পারে, সেই জায়গাগুলোতে টেপ দিয়ে স্পঞ্জ লাগিয়ে দিন। এতে পায়ে ফোস্কা পড়ার ঝুঁকি অনেকটাই কমে যাবে।

৬) সামান্য জলের সঙ্গে কিছুটা আটা গুলে থকথকে অবস্থায় ফোস্কার উপর লাগান। এতে পায়ের ফোস্কা খুব তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে।

৭) ভুলেও পায়ের ফোস্কা ফাটিয়ে দেবেন না। কোনও কারণে ফোস্কা যদি ফেটেও যায় সে ক্ষেত্রে ক্ষত স্থানে অ্যান্টিসেপ্টিক ক্রিম লাগিয়ে ঢেকে রাখতে হবে।

Add a Comment

Your email address will not be published.

CAPTCHA